September 30, 2020

Janadarpan

জনদর্পণ জনতার– প্ল্যাটফর্ম

ভারতীয় বায়ুসেনার ডেরায় ‘নতুন পাখি’,

1 min read

ওয়েব ডেস্ক , জণদর্পণ :- সকাল সকাল বায়ুসেনার তরফে টুইট, ১৭ স্কোয়াড্রন ‘গ্লোডেন অ্যারোস’-এ আনুষ্ঠানিকভাবে ৫ রাফালকে তুলে দেওয়া হবে আজ। এই পাঁচ রাফাল হলো বায়ুসেনার ‘নতুন পাখি’। পরে ওই সেনার মুখপাত্র জানান, বায়ুসেনার ইতিহাসে এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা হলো। হরিয়ানার অম্বালা ঘাঁটিতে ‘সর্ব ধর্ম পুজো’ করে বায়ুসেনার পরিবারে অন্তর্ভুক্ত করা হবে তাদের।

এ দিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত রয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরেন্স পার্লে, চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত, বায়ুসেনা প্রধান আরকেএস ভাদুরিয়া, স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় কুমার-সহ অন্যান্য। এই পাঁচ রাফালকে পরিবারে অন্তর্ভুক্ত করার আগে ‘ওয়াটার স্যালুট’-এ স্বাগত জানানো হয়।  উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই ফ্রান্স থেকে প্রায় ৭ হাজার কিলোমিটার যাত্রা করে গুজরাতের জামনগরের আকাশপথে প্রবেশ করে ৫ রাফাল। ভারতের আকাশে প্রবেশ করতেই তাদের অভ্যর্থনা জানায় এক জোড়া সুখোই-৩০। পাকিস্তানের আকাশপথ এড়িয়ে পশ্চিম আরব সাগরের উপর দিয়ে আসে ওই পাঁচ রাফাল। রাফালের দল ভারতের মাটি ছুঁতে কার্যত ঘুম কেড়ে নিয়েছে পাকিস্তানের। পাক বিদেশ মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়, ভারত অকারণে অস্ত্র মজুত করছে। এই প্রবণতা দক্ষিণ এশিয়া দেশগুলিতেও দেখা যাবে। এই যুদ্ধবিমান পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম। তাই ভারতের অভিপ্রায়ও যে কোন পথে তা স্পষ্ট হচ্ছে। চিন এ বিষয়ে তেমন কড়া মন্তব্য না করলেও কিছুটা ব্যাকফুটে বলে মনে করা হচ্ছে। সম্প্রতি ভারত এবং চিনের বিবাদের যে পারদ শিখরে উঠছে, বায়ুসেনার ঝুলিতে অন্তর্ভুক্ত এই পাঁচ রাফাল আরও অন্যমাত্রা দেবে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। 

প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধান অরূপ রাহা জানিয়েছেন, যুদ্ধবিমানের কর্মক্ষমতা নিরিখে রাফাল অন্যতম। অনেকগুলো কাজ এক সঙ্গে করতে পারে। দক্ষিণ এশিয়া সবচেয়ে শক্তিশালী যুদ্ধ বিমান রাফাল। লাদাখ পরিস্থিতিতে রাফালের অন্তর্ভুক্তি দেশের আত্মবিশ্বাসকে আরও ‘বুস্ট আপ’ করবে। তবে, প্রাক্তন বায়ুসেনা মনে করেন, আরও রাফালের দরকার। 

উল্লেখ্য, মোট ৩৬টি রাফাল ৫৯ হাজার কোটি টাকায় ফ্রান্সের সংস্থা ড্যাসল্ট থেকে কিনছে ভারত। ১০টি ইতিমধ্যেই ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে পাঁচটি আজ বায়ুসেনায় অন্তর্ভুক্ত হলো। বাকি ৫টি রাফালে ভারতীয় বায়ুসেনার পাইলটদের প্রশক্ষিণ দেওয়া হচ্ছে ফ্রান্সে। মনে করা হচ্ছে, বাকি রাফাল ২০২১ সালের মধ্য়েই চলে আসবে। সূত্রে খবর, ৩৬টি রাফালের মধ্যে ৩০টি যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যবহার করা হবে। বাকিগুলোয় প্রশক্ষিণ চালাবে বায়ুসেনা।  

তথ্য এবং ছবি সংগৃহীত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page