November 27, 2020

Janadarpan

জনদর্পণ জনতার– প্ল্যাটফর্ম

দীপাবলি উৎসব স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে আয়োজন করতে হবে : মুখ্যমন্ত্রী

1 min read

নিজস্ব প্রতিনিধি, জনদর্পণ:-

করোনা পরিস্থিতিতে উদয়পুরে রাজ্যের ঐতিহ্যবাহী দীপাবলি উৎসব এই বছর সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে আয়োজন করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব মেলা কমিটির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। পাশাপাশি এবারের দেওয়ালি উৎসবকে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য সুনির্দিষ্ট গাইড লাইন তৈরি করতে রাজস্ব দপ্তরের সচিব কে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। আজ মহাকরণের 2 নং কনফারেন্স হলে শ্রী শ্রী মাতা ত্রিপুরা সুন্দরী মন্দির ট্রাস্টের এক সভায় মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব এই নির্দেশ দিয়েছেন। সভায় আসন্ন তিনদিন ব্যাপী দীপাবলি উৎসবের প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা হয় এবং বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এবছর দেওয়ালি পূজার দিন ভিড় এড়াতে দর্শনার্থীদের অনলাইন বুকিং করে মায়ের দর্শন করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়ার জন্য মেলা কমিটিকে নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি পূর্ণার্থীরা জাতীয় বাড়িতে বসেই দীপাবলি পূজার সমস্ত কিছু দেখতে পারেন সেইজন্য লাইভ টেলিকাস্ট এর ব্যবস্থা করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন দেওয়ালী উৎসব সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে আয়োজন করার ক্ষেত্রে একটি সুনির্দিষ্ট গাইডলাইন তৈরি করতে হবে এবং তা বেশি করে প্রচারে নিয়ে যেতে হবে। আজকের সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে দেওয়ালি পূজার দিন ভিড় এড়াতে অনলাইন বুকিং এর মাধ্যমে ১৫০০০ দর্শনার্থীদের মায়ের মন্দিরে প্রবেশ করে পুজো ও মায়ের দর্শন করার সুযোগ দেয়া হবে। পুণ্যার্থীরা যাতে বাড়িতে বসেই মায়ের প্রসাদ ও আশীর্বাদ লাভ করতে পারেন তার জন্য অনলাইন বুকিং এর ব্যবস্থা থাকবে। বাড়িতে বসে পুণ্যার্থীরা যাতে দীপাবলি প্রচুর সমস্ত কিছু দর্শন করতে পারেন তার জন্য রাজ্যের বিভিন্ন কেবল চ্যানেলে লাইভ টেলিকাস্ট এর ব্যবস্থা করা হবে। মন্দির চত্বরে এবছর কোন ধরনের দোকান বসানো যাবে না ,ইচ্ছুক দোকানিরা ব্রমহা থেকে মন্দিরের মূল গেট পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশে সামাজিক দূরত্ব মেনে দোকান বসাতে পারবেন। এবারের উৎসবে কোন ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যাবেনা ।মন্দির চত্বরে সবাইকে মাক্স পরে প্রবেশ করতে হবে। মেলা কমিটি মন্দির চত্বরে পুণ্যার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও সেনিটাইজার রাখা হবে। এছাড়াও সিদ্ধান্ত হয়েছে দেওয়ালি পূজার দিন কল্ল্যান সাগরে সামাজিক দূরত্ব স্বাস্থ্যবিধি মেনে মঙ্গলারতি আয়োজন করা হবে ।মুখ্যমন্ত্রী বলেন উৎসব সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার ক্ষেত্রে আরক্ষা প্রশাসনকে বিশেষ ভূমিকা নিতে হবে ।পাশাপাশি স্থানীয় ক্লাব ও বিভিন্ন সামাজিক সংস্থাগুলিকে এই ক্ষেত্রে যুক্ত করার জন্য মেলা কমিটিকে পরামর্শ দেন মুখ্যমন্ত্রী ।সভায় এছাড়াও আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন রাজস্ব দপ্তরের মন্ত্রী নরেন্দ্র চন্দ্র দেববরমা ,পর্যটনমন্ত্রী প্রনজিত সিংহ রায়, বিধায়ক বিপ্লব কুমার ঘোষ ,মুখ্য সচিব মনোজ কুমার, স্বাস্থ্য দপ্তরের প্রধান সচিব জে কে সিনহা, পুলিশের অতিরিক্ত মহানির্দেশক রাজিব সিং গোমতী জেলার জেলাশাসক তরুণ কান্তি দেবনাথ ,শ্রী শ্রী মাতা ত্রিপুরা সুন্দরী মন্দির ট্রাস্টের ওএসডি ভাস্কর দাশগুপ্ত সহ ট্রাস্টের অন্যান্য সদস্যগণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page