November 27, 2020

Janadarpan

জনদর্পণ জনতার– প্ল্যাটফর্ম

কোজাগরী লক্ষী দেবীর পূজার প্রস্তুতি

1 min read

নিজস্ব প্রতিনিধি :বক্সনগর, জনদর্পণ

“এসো মা লক্ষী বসো ঘরে
আমার এই ঘরে থেকো আলো করে”
বাংলা শারদীয়া দুর্গোৎসবের পর পূর্ণিমা তিথিতে পূজীত হয়ে থাকেন ধনদেবী কোজাগরী লক্ষী দেবী। প্রতি বাঙালীর ঘরে ঘরে এই ধন দেবী পূজীত হয়ে থাকেন পরম্পরা গত ধর্মীয় রীতি মেনে। কোজাগরী লক্ষী দেবীর পূজোতে দেখা যায় বিভিন্ন আন্চলিক আচার অনুষ্ঠান,পূজোর দিন ঘরে ঘরে দেবী লক্ষীর প‍্যাঁচালী পাঠ করে তার আরাধনা করা হয়।উপচারে থাকে ফল, মিষ্টি,নাড়ু,মোয়া। লক্ষীর আচার অনুষ্ঠানেও দেখা যায় নানা ধরনের তাৎপর্য।কোনো কোনো পরিবারে আবার পূজায় মোট ১৪টি পাএে উপচার রাখা হয়।কলা পাতায় টাকা,স্বর্ণ,মুদ্রা, ধান,পান,কড়ি,হলুদ ও হরিতকী দিয়ে সাজানো হয় পূজার স্থানটিকে।ধন দেবী লক্ষী সকলের ঘরে বয়ে নিয়ে আসুক আর্থিক স্বচ্ছলতা এটাই সকলের প্রার্থনা এবং কাম‍্য। তারই অঙ্গ হিসেবে আমাদের বক্সনগর প্রতিনিধির ক‍্যামেরায় ধরা পরল পূজোর প্রস্তুতি ও ব‍্যস্ততার ছবি।জনগন চলতি অতি করোনা মহামারিতেও পিছিয়ে নেই ধন দেবী পূজোর কেনাকাটায়।জনগন খুসমেজাজে দেবী লক্ষীর মূর্তি থেকে শুরু করে পূজা সামগ্রী কনায় চড়ম ব‍্যস্ততা দেখা যায়।তবে লক্ষী মূর্তি বিক্রি করতে আসা জনৈক মৃৎ শিল্পীরা জানান বিগত বছরের ন‍্যায় এবছরও মূর্তি বিক্রিতে ব‍্যপক সাড়া মিলেছে, মানুষ সাধ‍্যের মধ্যে নিজ নিজ পছন্দমতমূর্তি কিনতে পারছে বলে তারা বেজায় খুশি। এদিন ক্রেতারা জানান বর্তমান বাজারে দ্রব‍্যমূল‍্য যেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে তাই তারা কিছুটা বিপাকে পরলেও লক্ষী দেবীকে সন্তুষ্ট করতে তারা কোনো প্রকার খামতি রাখছেননা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page