May 12, 2021

Janadarpan

জনদর্পণ জনতার– প্ল্যাটফর্ম

আবারো রাতের আঁধারে পর পর তিনটি দোকানে চুড়ি

1 min read

নিজস্ব প্রতিনিধি জনদর্পণঃ- নিশি কুটুমের দৌড়াত্ত্বে অতিষ্ঠ বিলোনিয়া বাঁশ পদুয়া পঞ্চায়েতের আমজাদ নগরের বাসীরা । প্রতিনিয়তই আমজাদ নগরের এলাকাজুড়ে গভীর রাতে নিশিকুটুম্বরা কোন না কোন জায়গায় হানা দিয়ে চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে রাবারের সিট থেকে শুরু করে রাস্তায় , বাজারে সরকারি উদ্যোগে বসানো সোলার লাইটের ব্যাটারি । সোলার লাইটের ব্যাটারী গুলিকে চোরের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য আমজাদ নগরের বাজারের লোকজনেরা বাজার শেষ হওয়ার পর বাজারে থাকা সোলার লাইটের ব্যাটারী খুলে রেখে দেয় দোকানে এবং লোক নাথ মন্দিরে যাতে চুরি না হয় ।সোমবারেও এর ব্যাতিক্রম হয়নি আমজাদ নগরে । গভীর রাতে আমজাদ নগরের বাজারে ও বাজার সংলগ্ন এলাকায় নিশিকুটুম্বরা পর পর তিনটি দোকান ও স্থানীয় লোকনাথ মন্দিরে হানা দেয় । চায়ের দোকান , মাংসের দোকান, সহ দুইটি দোকান ও লোকনাথ মন্দিরের দরজার তালা ভেঙ্গে চুরি সংঘটিত করার পর মুদীর দোকানে তালা ভেঙ্গে চুরির চেষ্ঠা‌ করে ।
নিশিকুটুম্বরা চায়ের দোকানে ও লোকনাথ মন্দিরে ছিল সোলার লাইটের ব্যাটারি এই ব্যাটারি গুলি চুরি করে নিয়ে যায় । শুধু ব্যাটারি না পল্ট্রি মোরগের দোকানের তালা ভেঙ্গে নিয়ে যার সাত থেকে আট টি পল্ট্রি মোরগ । সোমবার গভীর রাতে চুরির পর পর কয়েকটি দোকানে চুরির ঘটনায় চাঞ্চল্যের পাশাপাশি পুলিশের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে এলাকার মানুষজনেরা । এলাকার লোকজনের অভিমত আমজাদ নগর এলাকা কাঁটাতারের সীমান্তবর্তী হওয়ার সুবাদে বিভিন্ন অবৈধ নেশাকারবারী ও নেশাখোরদের একপ্রকার আস্তানা । বহুবার পুলিশ প্রশাসনের দারস্থ হয়েছি আমরা দাবি করেছে যে রাতের বেলায় আমজাদ নগরে পুলিশের টহলদারি ব্যাবস্থা করা হোক । কিন্তু এই এলাকা দিয়ে পুলিশের কোন টহলদারি ব্যাবস্থা না থাকার ফলে এই চুরি গুলি সংগঠিত করছে অনায়াসে এমনই অভিযোগ এলাকার লোকজনের । এলাকাবাসীরা চাইছে আমজাদ নগরে যাতে পুলিশের টহলদারি ব্যাবস্থা করা হয় ।আমজাদ নগরে পরপর দুটি দোকান সহ লোকনাথ মন্দিরে চুরির ঘটনা মঙ্গলবার সকালে প্রকাশ্যে আসতেই খবর দেওয়া হয় বিলোনিয়া থানাতে । পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে চুরির মামলা হাতে নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page