November 27, 2020

Janadarpan

জনদর্পণ জনতার– প্ল্যাটফর্ম

অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের বাড়িতে সংঘবদ্ধভাবে হামলা চালায় একদল দুষ্কৃতিকারী, সুবিচার পেতে থানায় দারস্থ আক্রান্ত পরিবার।

1 min read


বিশালগড় প্রতিনিধি, জনদর্পণ :-

একে চুড়ি তার উপর আবার মাতব্বরী , জমিতে রাখা জৈব সার কাউকে কিছু না বলে নিয়ে যাওয়া এবং জমি থেকে সার কেন নিয়ে গেল জিজ্ঞেসা করাতে রাতে সংঘবদ্ধ হয়ে গোটা পরিবারের উপর হামলা চালায় দুষ্কৃতকারীরা ঘটনা বিশালগড় থানাধীন ভাটি লারমায়।ঘটনার বিবরণে জানা যায় গত ২৭/১০/২০২০ ইং তারিখে বিশালগড় থানাধীন ভাটি লারমা এলাকার অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আদিত্য নমঃএর ভাইপোর জমি থেকে কে বা কাহারা কাউকে কিছু না বলে দু বস্তা জৈব সার নিয়ে যায় এবং পাশ্ববর্তী জমির মালিক উওম দেবনাথের জমিতে সারগুলি দেখতে পেয়ে আদিত্য নমঃ এর ভাইপো উওম দেবনাথকে সারগুলো কেন নিয়ে গেল জিজ্ঞেসা করে এবং উভয়ের মধ্যে কথা কাটা কাটি হয় কিন্তু তাতেই শেষ হয়নি, উত্তম দেবনাথ এলাকার উপপ্রধান রামকৃষ্ণ সাহাকে ঘটনাটি জানায় এবং এর কিছুক্ষণ পরে রামকৃষ্ণ সাহা ঘটনাটির মিমাংসা না করে এলাকার কয়েকজন দাপুটে নেতাকে সঙ্গে করে নিয়ে হামলা চালায় আদিত্য নমঃ এর বাড়িতে। হামলাতে রেহাই পায়নি শিক্ষকের স্ত্রী, পুত্র, কন্যা, এমনকি বাপের বাড়িতে বেড়াতে আসা বিবাহিত কন্যা টাকেও রেহাই দেয়নি হামলাকারীরা।শিক্ষকের বাড়ির প্রায় সকলেই রক্তাক্ত অবস্থায় ছিল।খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় বিশালগড় থানার পুলিশ কিন্তু হামলাকারীরা তখন পালিয়ে যায়। লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে আক্রান্ত পরিবার, এদিকে শিক্ষকের কন্যা গুরুতর আহত এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।দোষীদের শাস্তি এবং নিজে সুবিচার পেতে থানায় পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানা যায়। তাছাড়া মুল অভিযুক্তদের মধ্যে রামলাল সাহা, পিতা জহর লাল সাহা,রাকেশ সাহা পিতা জহর লাল সাহা, বাপন দাস পিতা স্বপন দাস,রাকেশ সাহা ওরফে চানু পিতা নিখিল সাহা, এবং উওম দেবনাথ পিতা চিত্তরঞ্জন দেবনাথ এদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানা যায় থানা সুত্রে।তবে ঘটনার চার পাঁচ দিন কেটে যাওয়ার পরও কিন্তু অভিযুক্তদের আটক করতে পারে নি পুলিশ এখন দেখার বিষয় শিক্ষক ও ওনার পরিবার বিনা দোষে আক্রান্ত হওয়ার সুবিচার পায় কিনা তা নিয়ে জনমহলে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page